• একটি ছক্কার দাম ৩৩ লাখ টাকা!

    বিপিএলে জস বাটলার ২ লাখ পাউন্ডে (প্রায় ২ কোটি ১০ লাখ টাকা) খেলছেন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসে—এটা আগেই জানা। আর্থিক মূল্যে টুর্নামেন্টের অন্যতম দামি খেলোয়াড় হিসেবে ইংলিশ উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান কি পারছেন ফ্র্যাঞ্চাইজির আস্থার প্রতিদান দিতে?
    কুমিল্লার হয়ে টুর্নামেন্টের প্রতিটি ম্যাচ খেলেছেন বাটলার। ১৩ ম্যাচে ১৮.০৯ গড়ে করেছেন ১৯৯ রান। ফিফটি ১টি। চার মেরেছেন ১৪টি, ছক্কা ৬টি। অর্থাৎ বাটলারের প্রতিটি সিঙ্গেলসের দাম ১ লাখ ৫০০ টাকা। একেকটা ছক্কার দাম ৩৩ লাখ টাকা!
    বড় দৈর্ঘ্যের ক্রিকেটে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে না পারলেও সীমিত ওভারের ক্রিকেটে বাটলারের সামর্থ্য নিয়ে প্রশ্ন তোলার সুযোগ নেই। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ৬ বছর কাটিয়ে দেওয়া ২৭ বছর বয়সী উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান ইংল্যান্ডের ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি দলে অপরিহার্য সদস্য হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন ইতিমধ্যেই।
    কিন্তু বিপিএলে কেন যেন দুর্দান্ত বাটলারের দেখা মিলছে না। যদিও টুর্নামেন্টের শুরুতে ভালোই করেছিলেন। প্রথম চার ম্যাচে তাঁর রান ছিল ২, ৪৮, ৫০* ও ৪৪। পরে ছন্দটা আর ধরে রাখতে পারেননি। প্রত্যাশা অনুযায়ী রান করতে পারছেন না, দেখা যাচ্ছে না তাঁর ‘ট্রেডমার্ক’ উদ্ভাবনী শটগুলোও! স্ট্রাইক রেটও আকর্ষণীয় নয়। টি-টোয়েন্টিতে বাটলারের স্ট্রাইক রেট যেখানে ১৪৪.০০, বিপিএলে এসে সেটি ১০৫.৮৫।
    বাটলার কেন নিষ্প্রভ, প্রশ্নটা পরশু করা হয়েছিল তামিম ইকবালকে। কুমিল্লা অধিনায়ক যদিও ইংলিশ সতীর্থের ওপর আস্থা হারাচ্ছেন না, ‘জস বাটলার বলেই যে সব সিরিজে বা ম্যাচে ভালো করবে, তা নয়। খেলোয়াড়ের খারাপ দিন আসে। সে ভালো করলে আমাদের ব্যাটিং বিভাগটা দারুণ হবে। আমরা জানি কতটা ভালো ব্যাটসম্যান সে। আমরা টাকা দিয়ে ভালো খেলোয়াড় আনতে পারব, কিন্তু পারফরম্যান্স নয়। ব্যাটসম্যানদের জীবনে এমন সময় আসেই, সে জস বাটলার হোক, তামিম ইকবাল হোক বা শচীন টেন্ডুলকার।’
    টুর্নামেন্টের আরেক দামি খেলোয়াড় ব্রেন্ডন ম্যাককালাম। এ কিউই তারকাকে কত টাকায় দলে ভিড়িয়েছে, সেটি অবশ্য গোপন রেখেছে রংপুর রাইডার্স। তবে টাকার অঙ্কটা বাটলারের কাছাকাছি কিংবা তার চেয়ে বেশিই হওয়ার কথা। টুর্নামেন্টে ক্রিস গেইলের তাণ্ডব দেখা গেলেও এখনো দেখা যায়নি টি-টোয়েন্টির আরেক বিস্ফোরক ব্যাটসম্যান ম্যাককালাম-ঝড়! ১০ ম্যাচে ১৫.২০ গড়ে করেছেন ১৫২ রান। ফিফটি নেই একটিও। চার মেরেছেন ১৪টি, ছক্কা ৯টি। টি-টোয়েন্টিতে যাঁর স্ট্রাইক রেট ১৩৮.৫৬, বিপিএলে সেটিই ৯৭.৪৩!
    ম্যাককালাম ছন্দে নেই, বিষয়টা নিশ্চয়ই ভাবাচ্ছে রংপুরকে। তবে দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা আশা হারাচ্ছেন না কিউই তারকাকে নিয়ে, ‘যেহেতু সে গুরুত্বপূর্ণ সময়ে ব্যাটিং করছে লম্বা ইনিংস প্রত্যাশা করি। ওর প্রচণ্ড তাগিদ আছে, চেষ্টা করছে। অনুশীলনে দেখবেন সে অনেক চেষ্টা করছে। এই উইকেট তার জন্য অনেক কঠিন। হয়তো একটা-দুটি ম্যাচে ভালো উইকেট পেয়েছে। সেখানে তার আত্মবিশ্বাস বাড়তে পারত। যেহেতু টি-টোয়েন্টিতে সময় নেওয়ার সুযোগ নেই, তাই অফ ফর্মের কারণে একটু থিতু হয়ে যে খেলবে, সেটাও পারছে না। তবু আশা করি সে ছন্দ ফিরে পাবে।’
    ম্যাককালাম-বাটলার, দুজনই ছন্দে ফেরার সুযোগ পাচ্ছেন আজ। ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে মুখোমুখি তাঁরা। দলের যে প্রত্যাশা, সেটি পূরণের সুযোগ নিশ্চয়ই হেলায় হারাবেন না দুই তারকা ব্যাটসম্যান!