• সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন (SEO) কি এবং কিভাবে শিখবেন?

    আজকের এই টপিকটি এসইও এর একটি বেসিক বিষয়। ব্লগিং শুরুর দিকে এই বিষয়টি নিয়ে আমাদের লেখার উচিত ছিল কিন্তু আমরা ধারনা করেছিলাম বিষয়টি নিয়ে অন-লাইনে অনেকবার লিখা হয়েছে, সেই জন্য বেসিক ব্যাপারগুলি নিয়ে লেখিনি। সম্প্রতি SEO নিয়ে আমাদের ব্লগের কয়েকজন ভিজিটরের কৌতুহলী প্রশ্ন শুনে এই ধরনের সহজতর বেসিক বিষয়টি নিয়ে লিখতে বাধ্য হলাম।
    সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন (SEO) কি এবং কিভাবে শিখবেন?

     Search Engine Optimization (SEO) কি?

    Search Engine Optimization কথাটির ভীতরে দুটি অর্থবহুল অংশ রয়েছে। একটি হচ্ছে Search Engine এবং অন্যটি হচ্ছে Optimization. তারমানে দাড়াচ্ছে SEO হচ্ছে সার্চ ইঞ্জিন-কে অপটিমাইজেশন করার এক ধরনের প্রযুক্তিগত ওয়েব কৌশল। এটিকে অন্যভাবেও বলা যায়- বিভিন্ন সার্চ ইঞ্জিন হতে কোন একটি ব্লগ/ওয়েবসাইটকে সার্চ রেজাল্টের ভাল অবস্থানে অথবা প্রথম পাতায় নিয়ে আসার কৌশল বা প্রক্রিয়াকেই Search Engine Optimization বলা হয়। এটিকে সার্চ ইঞ্জিন হতে ভাল ফলাফল পাওয়ার এক ধরনের নিয়মতান্ত্রিক চালাকিও বলতে পারেন।

     Search Engine কি?

    সহজ ভাষায় বলা যায় সার্চ ইঞ্জিন হচ্ছে ইন্টারনেটে কীয়ার্ডের মাধ্যমে কোন কিছু খোঁজার এক ধরনের সফটওয়ার বা এপ্লিকেশন। যেখানে কোন কিছু লিখে সার্চ দিলেই চোখের পলকে যে কোন বিষয়ে হাজার হাজার তথ্য আপনার সামনে হাজির করবে। সম্প্রতি সময়ের সবচাইতে জনপ্রিয় সার্চ ইঞ্জিন হচ্ছে Google. এ ছাড়াও জনপ্রিয়তার তালিকায় রয়েছে Bing, Yahoo, Ask ও Yandex সার্চ ইঞ্জিন। এই সার্চ ইঞ্জিন কি এবং কিভাবে কাজ করে এ নিয়ে আমরা পূর্বে একটি বিস্তারিত পোষ্ট শেয়ার করেছি।

     কেন SEO করা হয়?

    একটি ব্লগ/ওয়েবসাইটকে সার্চ রেজাল্টের ভাল অবস্থানে বা প্রথম পাতায় নিয়ে আসার জন্য এবং সার্চ ইঞ্জিন হতে ভাল র‌্যাংকিং পাওয়ার জন্য বা সার্চ ইঞ্জিন হতে ব্লগে প্রচুর পরিমানে ভিজিটর পাওয়ার জন্য মূলত সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন (SEO) করা হয়। একজন লোক যখন তার ওয়েবসাইটকে সঠিকভাবে সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজ করবে তখন সার্চ ইঞ্জিন হতে তার ব্লগে প্রচুর পরিমানে ভিজিটর বাড়তে থাকবে। কারণ Search Engine Optimization করার ফলে সার্চ ইঞ্জিন তার ব্লগের কনটেন্টের বিষয়বস্তু সম্পর্কে সুস্পষ্ট ধারনা পাবে। কাজেই যে কোন ওয়েবসাইট-কে সফল করতে হলে বা ওয়েবসাইট হতে আয় করার জন্য প্রতিনিয়তই সঠিকভাবে তার ওয়েবসাইটটিকে Search Engine Optimization করতে হবে।

     SEO কত প্রকার ও কি কি?

    কাউকে যদি জিজ্ঞেস করেন SEO কত প্রকার, তাহলে যে কেউ On Page SEO ও Off Page SEO এর কথা বলবে। এসইও দুই প্রকারের কথাটি ঠিক আছে। তবে On Page ও Off Page নয়। SEO হচ্ছে মূলত দুই প্রকারের। যথাঃ ০১. অর্গানিক এসইও ০২. পেইড এসইও। অর্গানিক এসইও আবার দুই ধরনের। একটি হচ্ছে On Page SEO এবং অন্যটি হচ্ছে Off Page SEO.

     অর্গানিক SEO এবং পেইড SEO কি?

    অর্গানিক ‍এসইও বলতে বুঝায় সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশনের সকল নিয়ম যথাযথভাবে অনুসরণ করে সার্চ রেজাল্টের পাতায় অবস্থান নেয়ার যাবতীয় প্রক্রিয়া। অন্যদিকে পেইড SEO হচ্ছে গুগল কোম্পানির নিকট টাকার বিনিময়ে সার্চ ইঞ্জিনের প্রথম পাতায় চলে আসা। আপনারা ভালভাবে লক্ষ্য করলে দেখতে পাবেন যে, কোন একটি বিষয় সার্চ দেয়ার পর সার্চ রেজাল্টের সবার উপরের কিছু ওয়েবসাইট থাকে যেগুলিতে ছোট করে Ad লিখা থাকে। সেগুলিই Paid SEO এর মাধ্যমে সবার উপরে এসেছে। অন্যদিকে এগুলির নিচে সে সমস্ত ওয়েবসাইটগুলি থাকে সেগুলিই অর্গানিক এসইও অর্থাৎ কোন টাকা না দিয়ে গুগলের পাতায় অবস্থান নিয়েছে।

     On Page SEO ও Off Page SEO কি?

    On Page SEO হচ্ছে একটি ওয়েবসাইট/ব্লগকে পরিপূর্ণভাবে সাজানোর যাবতীয় কার্যক্রম অর্থাৎ একটি ওয়েবসাইটকে ভালভাবে তৈরি করার জন্য যা কিছুর প্রয়োজন হয় তার সবটুকুই হচ্ছে On Page SEO. আর Off Page SEO হচ্ছে আপনার ব্লগটির কনটেন্টের লিংক বিভিন্ন জনপ্রিয় সাইটে শেয়ার করা, ব্যাক লিংক তৈরী করা, বিভিন্ন ফোরামে জয়েন, ব্লগের প্রচারনাসহ ইত্যাদি উপায়ে জনপ্রিয় করে তোলা।

     SEO এর গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তাঃ

    সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশনের গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে বলে শেষ করা যাবে না। এক কথায় বলতে গেলে এভাবে বলা যায় অন-লাইন ব্লগিং, মার্কেটিং, ব্যবসার প্রচার ও অনলাইনে কোন বিষয়ে সফলতা অর্জনের জন্য SEO করতেই হবে। এসইও না করে কোনভাবেই অনলাইনের কোন বিষয়ে সাফল্য অর্জন করতে পারবেন না। তার কারণ হচ্ছে- ইন্টারনেটে সবাই সার্চ ইঞ্জিনের মাধ্যমে প্রয়োজনীয় সকল বিষয় খোঁজে থাকেন। বিশেষকরে গুগল সার্চ ইঞ্জিনের ব্যবহার এত ব্যাপক, যার জন্য গুগল সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন না করে কোনভাবে সফল হওয়ার উপায় নেই। অধীকন্তু সম্প্রতি সময়ের জনপ্রিয় ওয়েব ব্রাউজার Mozilla Firefox ও Google Chrome সহ আরেক অনেক জনপ্রিয় Browsers গুলির ডিফল্ট সার্চ ইঞ্জিন Google হওয়ার করনে গুগল সার্চ ইঞ্জিনের ব্যবহার আরও বেশী বেড়ে গেছে। কাজেই আপনার ব্লগ/ওয়েবসাইটটি সবার কাছে পরিচিত ও জনপ্রিয় করে তোলার জন্য সার্চ ইঞ্জিনের বিকল্প আর কিছু নেই।

     কিভাবে SEO করবেন?

    কিভাবে SEO করবেন কথাটি শুনে হয়ত ভাবছেন এখনি সবকিছু জেনে যাবেন। আসলে কিভাবে SEO করতে হয় সেটির সহজ বা সংক্ষিপ্ত কোন উপায় নেই। SEO হচ্ছে চলমান গতানুগতিক পরিবর্তনশীল বিশাল একটি প্রক্রিয়া। যার বেশীরভাগ বিষয়ই সবসময় আপডেট ও পরিবর্তন হতে থাকে। তবে আপনি যদি SEO সম্পর্কিত বেসিক বিষয়গুলি ভালভাবে জানেন ও বুঝেন তাহলে সময়ের সাথে সাথে যতই পরিবর্তন হক না কেন পরিবর্তনের সবকিছুই আপনি সহজে বুঝতে পারবেন। সেই জন্য আপনাকে SEO এর মূল বিষয়গুলিঅবশ্যই কোন ভাল একজন অভীজ্ঞ লোক বা প্রতিষ্ঠানের নিকট হতে শিখে নিতে হবে।

     কোথা হতে SEO শিখবেন?

    ভালভাবে SEO শিখার জন্য দুই ধরনের উপায় রয়েছে। একটি হচ্ছে কোন অভীজ্ঞ ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের নিকট হতে শিখে নেয়া এবং অন্যটি হচ্ছে অন-লাইন হতে ভালমানের বিভিন্ন ব্লগ/ওয়েবসাইট হতে শেখা। অন-লাইন হতে শেখার ক্ষেত্রে আপনাকে প্রচুর পরিমানে ধৈর্য্য ধারন করতে হবে। অন্যদিকে কোন ভাল প্রতিষ্ঠান থেকে শেখার ক্ষেত্রে অল্প সময়ে শিখে নিতে পারবেন।

    তবে একটা কথা মনে রাখবেন আপনি অন-লাইন বা যে কোন প্রতিষ্ঠান হতে শিখুন না কেন অবশ্যই সেটি ভালমানের প্রতিষ্ঠান বা ভালমানের অল-লাইন ব্লগ হতে হবে। সম্প্রতি সময়ে SEO শেখানোর মত অনেক প্রতিষ্ঠানই হাতের কাছে রয়েছে, কিন্তু এদের মধ্যে ভালমানের প্রতিষ্ঠান পাওয়া খুব দুরূহ একটা ব্যাপার। 

    উদাহরণ স্বরূপ- আজ আমি একটি SEO সংক্রান্ত প্রতিষ্ঠানের YouTube চ্যানেলে ব্লগের Heading ট্যাগের সেটিংস সম্পর্কিত একটি টিউটরিয়াল দেখি। সেখানে একজন শিক্ষক তার ছাত্রদের H1, H2 ও H3 ট্যাগ সেটিংসটা ভূলভাবে শেখাচ্ছিলেন। বিষয়টি দেখে অবাক না হয়ে পারলাম না।

    আরেকটি উদাহরণ- আমার ব্লগের একজন ভিজিটরের নিকট হতে "আইটি বাড়ী ডট কম" ব্লগটার প্রশংসা শুনে ব্লগটিতে ভিজিট করি। ভিজিট করার পর সেখানে অবশ্যই SEO সংক্রান্ত বেশ কিছু ভালমানের ভিডিও টিউটরিয়াল দেখতে পাই। অবশ্য টিউটরিয়ালগুলি যে কোন ব্যক্তিকে SEO এর বেসিক বিষয়গুলি শিখতে সাহায্য করবে। তবে এই ভিডিও গুলির মধ্যে থাকা অনেক বিষয়ই আপডেট হয়েগেছে। সে ক্ষেত্রে ভিডিও গুলি থেকে সবকিছু সঠিকভাবে শেখা সম্ভব নয়। অন্যদিকে "আইটি বাড়ী ডট কম" ব্লগটির ‍Source ফাইল হতে ব্লগটির Meta Key Word ট্যাগের ভূল ব্যবহার দেখে আবাক না হয়ে পারলাম না। তখন বাধ্য হয়ে ভূলটি সংশোধনের জন্য রেফারেন্সসহ একটি কমেন্ট করি, কিন্তু "আইটি বাড়ী ডট কম" এর এ্যাডমিন আব্দুল কাদের সাহেব আমার কমেন্টটি অনুমোদন করেননি। পরের দিন দেখতে পাই উনার ব্লগের সোর্স ফাইল দেখার উপায় বন্ধ করে দিয়েছেন। আমার কমেন্টটি অনুমোদন না করা এবং সোর্স ফাইল বন্ধ করে দেয়ার সঠিক কারণ আমার কাছে বোধগম্য হয়নি। 

    এই উদাহরণ গুলির পিছনে আমার একটাই উদ্দেশ্যে আপনি যে প্রতিষ্ঠান বা অনলাইন হতে শিখুন না কেন সেটি যেন হয় ভালমানের প্রতিষ্ঠান বা ব্লগ। তাহলে আপনি সঠিকভাবে পরিপূর্ণ SEO শিখতে সক্ষম হবেন।

     আপনি কি SEO শিখতে সক্ষম হবেন?

    বেশীরভাগ লোকই এসইও বিষয়টাকে বেশ কঠিন ভেবে মনেকরে আমার দ্বারা এসইও শেখা সম্ভব হবে না। আমি তাদের উদ্দেশ্যে বলব বিষয়টাকে এত কঠিন না ভেবে সহজভাবে নিলে আপনিও একজন এসইও এক্সপার্ট হতে পারবেন। বিশেষকরে পেইড এসইও এর কথা না ভেবে আপনি ঐ টাকাগুলি দিয়ে ভালভাবে এসইও শিখে নিলে আপনার ব্লগটাকে ভবিষ্যতে একটি ভালমানের প্লাটফর্মে নিয়ে যেতে সক্ষম হবেন।

    সর্বশেষঃ আমরা ইতিপূর্বে ব্লগার টেমপ্লেট পরিপূর্ণ এসইও করার সকল উপায় সংকান্ত টিউটরিয়াল শেষ করেছি। এখন থেকে আমরা সকল ধরনের ব্লগ/ওয়েবসাইটের এসইও নিয়ে বিভিন্ন টিউটরিয়াল শেয়ার করব, ইনশাআল্লাহ্।