• অনলাইন শপিং করার সময় পয়সা বাঁচানোর ১০ টি উপায়

    মানুষ দিন দিন শৌখিন হয়ে পড়েছে। তাই আজকাল অনেকেই শপিং করার জন্য আর বাজারে যেতে চায়না বরং ঘরে বসেই অনলাইনে শপিং করার ব্যাপারে আগ্রহী হয়ে উঠেছে।বর্তমানে বাংলাদেশে অসংখ্য অনলাইন শপিং ওয়েবসাইট রয়েছে যেগুলো ইতিমধ্যেই মানুষের কাছে অনেক জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। এতে সময় যেমন কম খরচ হয় তেমনি অসংখ্য কালেকশনের মধ্য থেকে আপনার পছন্দের পণ্যটি খুব সহজেই কিনতে পারবেন। তবে এর সাথে সাথে আপনার পকেট থেকে খসে যাচ্ছে অনেক টাকা।
    তাই যারা অনলাইনে শপিং করার সময় টাকা সেভ করতে চান তাদের জন্য নিচে কয়েকটি টিপস দেয়া হলঃ ১। ওয়ান স্টপ ওয়েবসাইট ওয়ান স্টপ ওয়েবসাইট হচ্ছে এমন একটা অনলাইন পোর্টাল যা আপনাকে দিবে ভিন্ন ভিন্ন স্টোরের এ্কি রকম পণ্যর একটা তালিকা । এছাড়া পণ্যের দাম বিভিন্ন স্টোরে কেমন তাও জানতে পারবেন ফলে দাম কমবেশী যাচাই করে আপনার পছন্দ মতো পণ্য ক্রয় করতে পারবেন। যেমন বিভিন্ন রেস্টুরেন্টে কমদামে ফাস্টফুড খাবারের সন্ধানে ফুডপান্ডা এবং জাস্টইট হচ্ছে পপুলার ওয়েবসাইট ।
    ২। প্রাইজ ও ক্যাটাগরি ফিলটার সহ ওয়েবসাইট ওয়েবসাইটে যদি প্রাইজ ও ক্যাটাগরি ফিলটার থাকে তবে তা আপনার পয়সা বাঁচাবে কেননা আপনি নির্দিষ্ট কোন পণ্য কিনতে চাইলে তা আপনার সামর্থ্য অনুযায়ী খুঁজতে পারবেন এছাড়া এই প্রক্রিয়ায় কোন কিছু অনুসন্ধান করার প্রক্রিয়াটি আরও ছোট হয়ে যায়। ফলে বেশী দাম দিয়ে কিছু না কিনে সাধ্যের মধ্যে কেনাকাটা করতে পারবেন। অ্যামাজন, ইবে এবং ফ্লিপকার্ট ওয়েবসাইটে রয়েছে প্রাইজ ও ক্যাটাগরি ফিলটার তাই কেউ খুব সহজেই তার সাধ্যের মধ্যে পণ্য খুঁজতে পারে বলে এই ওয়েবসাইটগুলো বর্তমানে অনেক জনপ্রিয়।
    উপরের ছবিতে অ্যামাজন ওয়েবসাইট থেকে কিছু কিনতে চাইলে তার ক্যাটাগরি সিলেক্ট করার পর go টে ক্লিক করলে একটা প্রাইজ ফিলটার আসবে যার মধ্য থেকে আপনি কি রকম দামের মধ্যে পণ্য কিনতে চান তা পছন্দ করতে পারবেন।
    ৩। ডিসকাউন্টের জন্য কুপন ওয়েবসাইট ব্যবহার করুন অনলাইন শপিং এর সুবিধা হচ্ছে আপনি বিভিন্ন ডিসকাউন্ট অফার পাবেন যা কিনা আপনি সরাসরি পণ্যটি কিনতে গেলে নাও পেতে পারেন। অনেক কুপন ওয়েবসাইট রয়েছে যা আপনাকে অনলাইনে শপিং এর জন্য ডিসকাউন্ট অফার করে এমন একটি ওয়েবসাইট হচ্ছে ফ্লিপইটডট কম। এসব ওয়েবসাইট থেকে শপিং করলে আপনার অনেক টাকা সেভ হবে।
    ৪। শপিং লিস্ট ম্যানেজার আপনি কি জানেন এমন একটি সফটওয়্যার আছে যা আপনার শপিং লিস্ট ম্যানেজ করবে। আপনি অনলাইনে শপিং করার সময় এই সফটওয়্যারটি আপনার পছন্দ অনুযায়ী পণ্যের ক্যাটাগরি কুপন অনুযায়ী একটা লিস্ট তৈরি করবে যা ঐ স্টোরে রয়েছে। এই সফটওয়্যারটি আপনার পছন্দের লিস্ট অনুযায়ী কোন পণ্যের জন্য যদি স্টোরটি কুপন বা ডিসকাউন্ট অফার দায় তবে তা আপনাকে সরণ করাবে।
    ৫। শপিং খরচ দেখে চলুন অনলাইন শপিং করার সময় সব সময় শপিং কস্ট দেখে চলুন। একটা পণ্য কেনার আগে দেখুন এর শিপিং কস্ট কত। অনেক সময় দেখা যায় আপনার কেনা পণ্যের খরচ যা হয় ও শিপিং কস্টও তাই হয় ফলে ঐ পণ্য কেনার আগে ভেবে দেখুন কেননা এতে আপনার পয়সার অপচয় হবে। অনেক ওয়েবসাইট ফ্রি শিপিং দিয়ে থাকে তাই ঐসব ওয়েবসাইট থেকে শপিং করলে আপনার আর এক্সট্রা খরচ হবেনা পণ্য ডেলিভারির জন্য। তবে অবশ্য ঐসব অনলাইন শপ থেকে পণ্য কিনবেন না যেখানে ফ্রি ডেলিভারির জন্য একটা নির্দিষ্ট পরিমাণ শপিং করতে বলে। কেননা এতে দেখা যায় আপনার বাজেট যত থাকে তার চাইতে বেশী খরচ করা লাগে।
    ৬। বিভিন্ন ওয়েবসাইট তুলনা করুন যদিও প্রাইজ ও ক্যাটাগরি ফিলটার আপনাকে বিভিন্ন পনের দাম তুলনা করার সুবিধা দিবে। তবে কিছু কিছু প্রোডাক্ট আছে যা অনেক দামী যেমন ল্যাপটপ, স্মার্ট ফোন কম্পিউটার ইত্যাদি যা কেনার আগে আপনার উচিত বিভিন্ন ওয়েবসাইটে বিভিন্ন ব্র্যান্ড ও দাম তুলনা করা। এতে আপনি পণ্যটি সম্পর্কে একটা ধারনা নিতে পারবেন এছাড়া কোন ব্র্যান্ড থেকে পণ্যটি কিনলে আপনার অধিক খরচ হবে তা বুঝতে পারবেন।
    ৭। মেম্বার হউন অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে যারা আপনাকে মেম্বারশিপ অফার করে। আপনি যদি জানেন যে আপনি একটি নিদিষ্ট ওয়েবসাইট থেকে শুধু একবারই পণ্য কিনবেন তখন এই মেম্বারশিপ আপনার জন্য খুব একটা উপকারী হবেনা। আর আপনি যদি জানেন আপনি বার বার ঐ ওয়েবসাইট থেকে পণ্য কিনবেন তবে তাদের মেম্বার হওয়া আপনার জন্য লাভজনক হতে পারে। কারণ মেম্বার হলে অনেক সময় ডিসকাউন্টের পাশা পাশি বিভিন্ন গিফট ওয়েবসাইটগুলো প্রদান করে থাকে।
    ৮। ক্যাশ ব্যাক ওয়েবসাইট জয়েন করুন যেসব ওয়েবসাইটে ক্যাশ ব্যাক করার অপশন আছে সেসব ওয়েবসাইট থেকে পণ্য কেনার চেষ্টা করুন এতে আপনার টাকা কম খরচ হবে।
    ৯। মিতব্যয়ী হউন তবে অধিক মিতব্যয়ীতা পরিহার করুন আপনি কম খরচ করতে চাচ্ছেন ভালো কথা তাই বলে কম দামে বাজে জিনিশ কিনবেন না। যেমন আপনি যদি একটা ফোন কিনতে চান তবে তা দেখে শুনে ভালো ব্র্যান্ডের কেনা উচিৎ। অজানা কোন ব্র্যান্ড থেকে স্বল্প দামে পণ্য কেনার আগে একটু ভাবুন কেননা এখানে অবশ্যই কোন রহস্য আছে এত অল্প দামের পেছনে। অনেক সময় দেখা যায় কিছু নন ব্র্যান্ড কোম্পানি তাদের বাজে কিছু প্রোডাক্ট বিক্রি করার জন্য অনেক অল্প দামে বাজারে ছাড়ে। অনেক মানুষ টাকা বাঁচানোর জন্য অল্প দামের এসব বাজে পণ্য কিনে ঠকে থাকেন। তাই খরচ কমানো ভালো তবে টাকা বাঁচানোর জন্য না ঠকাটাই বুদ্ধিমানের কাজ।
    ১০। ঐ জিনিশসটাই কিনুন যা আপনার দরকার যা আপনি চান তা নয় অনলাইন শপে আপনি একটা বিশাল কালেকশন দেখতে পান ফলে আপনার অনেক ইচ্ছা জাগতে পারে বিভিন্ন পণ্য কেনার জন্য। কিন্তু আপনাকে এসব প্রলোভন বাদ দিয়ে আপনার ঠিক যা জরুরি দরকার তা কেনা উচিৎ। যা আপনার না থাকলেও চলে এমন পণ্য কেনা থেকে নিজেকে বিরত রাখুন। তাই কোন কিছু কেনার আগে একবার ভাবুন আসলে জিনিসটি আপনার কতোটা দরকার।