• মিক্সড চাইনিজ ভেজিটেবল রেসিপি

    শাক সবজি ছাড়া মানুষের ভাল খাবার আর কি আছে? প্রতিবেলায় আমাদের কিছু না কিছু শাক সবজি খেতে হয়। শাক সবজি খেলে শরীর সুস্থ্য থাকে এবং শরীরে নানা প্রকারের ভিটামিন পাওয়া যায়। শিশুরা সহ অনেক বড়রা শাক সবজির কথা শুনলে বা ঘরে রান্না হলে, না খেয়েই বেলা কাটিয়ে দিতে চায়! আর এই জন্যই আমাদের শাক সবজি রান্না করার সময় বেশী মনোযোগী এবং দেখা ও স্বাদের দিকে বেশী খেয়াল রাখতে হয়। সবজি রান্না করে টেবিলে রাখলে দেখতে পছন্দ হলে না খেয়ে পারা যাবে না… আর একটু খেয়ে স্বাদ পেলে তো কথাই নেই! পুরা বাটি সাফ করে দিবে আপনার কষ্ট করে সাফ করতে হবে না!
    চলুন আজ একটা চাইনিজ মিক্সড ভেজিটেবল (কয়েক পদের মিশানো) রান্না দেখি। আমি এখনি নিশ্চিত ছবি দেখেই আপনি বলবেন, ওয়াও!
    যা যা লাগবে:

    মিক্সড সবজিঃ
    – চিচিংগা (প্রধান সবজি হিসাবে ধরা হয়েছে),
    – গাজর,
    – ক্যাপসিকাম,
    – পেঁয়াজ (ফালি করে কাটা পেঁয়াজ এখানে সবজি হিসাবে ধরা হয়েছে)
    অন্যান্য উপকরণঃ
    – হাফ কাপ চিকেন বোনলেস জুলিয়ান কাট (লম্বা কাট)
    – ১ টেবিল চামচ আদা
    – ১ টেবিল চামচ রসুন
    – ২ চা চামচ সয়াসস
    – কয়েকটা কাঁচা মরিচ
    – এক চিমটা গোল মরিচ
    – ১ চা চামচ চিনি
    – হাফ কাপ তেল
    – লবণ পরিমাণ মত
    প্রণালী:
    ১. চিচিংগা ও গাজর সবজি গুলো আড়াআড়ি করে কেটে হালকা লবণ যোগে সিদ্ব করে ঠাণ্ডা পানিতে ধুয়ে ফেলুন। এই সিদ্বটা এজন্য যে, যেন রান্নায় সময় কম লাগে এবং সবজির রং যেন শেষেও ভাল থাকে।
    ক্যাপসিকাম সিদ্ব না করাই ভাল, এর ঘ্রাণ ভাল লাগবে… আড়াআড়ি কেটে রেখে দিন।
    ২. উপকরণের সব মশলা পাতি দিয়ে চিকেন গুলো মিশিয়ে ফেলুন (লবণ সহ)। কড়াইতে তেল গরম করে মশলা মাখা চিকেন গুলো তেলে ভাঁজতে থাকুন।
    ৩. চিকেন পিস গুলো নরম হয়ে গেলে তাতে পেঁয়াজ কাটা গুলো দিয়ে আবারো ভাল করে কষান। (এই পর্যায়ে সামান্য হাফ কাপ পানি দিন, ঝোল বানান)
    ৪. তেল উঠে গেলে কিছুক্ষণ পর সবজি গুলো দিয়ে দিন। ভাল করে মিক্স করুন। লক্ষ্য রাখবেন যাতে সবজি গুলো না ভেংগে যায়, উপরে নীচে করে।
    ৫. হাফ কাপ পানিতে এক চামচ কর্ন ফ্লাওয়ার গুলিয়ে সবজিতে দিয়ে দিন। (বাসায় না থাকলে নাই, এটা শুধু সবজির ঝোলকে গাঢ় করার জন্য) ভাল করে মিশিয়ে মিনিট পনেরো জাল দিন। এই সময় ফাইনাল লবণ দেখুন।
    ৬. ব্যস, পরিবেশনের জন্য প্রস্তুত।
    সাথে পোলাউ এবং চিকেন ভুনা রান্না হলে তো কথাই নেই। একবার বানিয়ে দেখুন…।। বুঝতে পারবেন আপনার পরিবারের সবাই আপনাকে কি কি বলেন! আমি আবারো নিশ্চিত, খেয়ে বলবে, ওয়াও!